খুনি ছেলেকে পুলিশে ধরিয়ে দিলেন মা

নিজস্ব জেলা প্রতিবেদক : তুচ্ছ ঘটনায় নগরীর বায়েজিদ থানার হামজারবাগ এলাকায় ছুরিকাঘাতে খুন হন শাহাদাত নামের একজন প্রাইভেটকারের চালক। ছুরিকাঘাত করেই পালিয়ে যান ফরহাদ নামের এই ঘাতক। কিন্তু এই হত্যাকাণ্ডের মাত্র পাঁচ ঘণ্টার মধ্যেই হত্যাকারীকে পুলিশে ধরিয়ে দিলেন তারই মা।

খুনি ছেলেকে পুলিশে দেওয়া এই মায়ের নাম ফাতেমা রহমান ময়না। তিনি স্থানীয় আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত।

ফাতেমা রহমান বলেন, ‘আমার এলাকাতেই শাহদাত নামের একজন খুন হয়েছে বলে জানতে পারি। কিন্তু আমার ছেলেই যে এই শাহাদাতকে ছুরিকাঘাত করেছে, তা জানতাম না। হত্যাকাণ্ডের পর আমার ছেলে ফরহাদ আমাকে ফোন করে জানায়, সে শাহাদাতকে ছুরিকাঘাত করেছে। এখন সে চরপাথরঘাটা এলাকায় পালিয়ে আছে। তখন আমি বিবেকের তাড়নায় পুত্রের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে পুলিশকে খবর দেই। পরে পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে চরপাথর ঘাটা এলাকা থেকে ফরহাদকে গ্রেপ্তার করে।’

নগর পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার (বায়েজিদ জোন) পরিত্রাণ তালুকদার হত্যাকারীকে গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মায়ের দেওয়া তথ্য ও সহায়তায় আসামি ফরহাদকে কর্ণফুলী থানাধীন চরপাথরঘাটা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

ঘাতক ফরহাদের মা ফাতেমা রহমান ময়না বলেন, ‘আমার ছেলে যা করেছে, সেটা খারাপ কাজ। সে কীভাবে আরেকজনকে খুন করে! তাকে তার কাজের শাস্তি পাওয়া উচিত। আমি সততার সঙ্গে রাজনীতি করি। কোনো অন্যায়কে আমি প্রশ্রয় দিতে পারি না।’

Print Friendly, PDF & Email