বাংলাদেশের পতাকা ছেড়ায় কপিল দেব ভারতীয় যুবাদের কঠিন শাস্তি চেয়েছেন

নিজস্ব ডেস্ক প্রতিবেদক : বাংলাদেশের পতাকা ছেড়ায় কপিল দেব ভারতীয় যুবাদের কঠিন শাস্তি চেয়েছেন।তার মতে খেলায় হার-জিত আছে। এক দল হারবে, আরেক দল জিতবে এটাই স্বাভাবিক। আর ক্রিকেটকে বলা হয় ভদ্রলোকের খেলা। তবে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনাল হারের পর ভদ্রলোকের খেলায় ভারত ভদ্রতাটা বজায় রাখতে পারেনি। প্রতিপক্ষের উদযাপন সহ্য করতে না পেরে মেজাজ হারিয়ে ভারতীয় একজন খেলোয়াড় বাংলাদেশের এক খেলোয়াড়ের কাছ থেকে কেড়ে নেন লাল-সবুজের পতাকা।যা অমার্জনীয়।

দক্ষিণ আফ্রিকায় সদ্য অনুষ্ঠিত যুব ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচের শেষে বাংলাদেশের পতাকা ছেড়ায় ভারতীয় ক্রিকেটারদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন ভারতীয় বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক কপিল দেব। কপিল দেব বলেছেন, ‘ক্রিকেট এখন আর আর ভদ্রলোকের খেলা নেই। ম্যাচ হেরে যাওয়ার পর মাঠে হাতাহাতি করার ঘটনাও ঘটে এখন ক্রিকেটে।’

ক্রিকেট নিয়ে আলোচিত এক অনুষ্ঠানে বৃহস্পতিবার কপিল ক্ষোভ ঝাড়েন। তিনি বলেন, “ভারতীয় যেসব ক্রিকেটার মাঠে এ রকম অসদাচরণ করেছেন, তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেখতে চাই আমি। আশা করি, বিসিসিআই কঠোর পদক্ষেপ নেবে।”তিনি আরও বলেছেন, ‘কে বলেছে ক্রিকেট ভদ্রলোকের খেলা? ক্রিকেট আর ভদ্রলোকের খেলা নেই, আমরা যখন খেলতাম তখন ছিল।’

যুব ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচের শেষে বাংলাদেশ ও ভারত দলের খেলোয়াড়দের বিবাদে জড়ানোর ঘটনা নিয়ে তিনি বলেন, ‘ওইদিন ভারতীয় ক্রিকেটাররা যা করেছে তা অগ্রহণযোগ্য ও অমার্জনীয়। আগ্রাসী মনোভাবকে আমি স্বাগত জানাই। কিন্তু হতে হবে খেলায়। খেলার বাইরে নয়। ওদের জোধাতে হবে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়দের হেয় করার খেলাকে ক্রিকেট বলে না। তাই এই বয়স থেকেই বিধ্বংসী মানসিকতা নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।’