বাসে তল্লাশিকালে চালককে পিটিয়ে হত্যা ডিবি পুলিশের

নিজস্ব জেলা প্রতিবেদক : চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলার শিকলবাহা ইউনিয়নের ভেল্লাপাড়া সেতু সংলগ্ন এলাকায় কক্সবাজার থেকে ঢাকাগামী শ্যামলী পরিবহনের একটি গাড়িতে তল্লাশি চালায় ডিবি পুলিশ।এ সময় গাড়ির চালককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নিহত চালকের নাম জালাল উদ্দিন (৫০)। সে দিনাজপুর জেলার কোতোয়ালী থানার দরবারপুর গ্রামের আফজাল হোসেনের পুত্র। সোমবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের লাশ চমেক হাসপাতাল মর্গে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শ্যামলী পরিবহন এন. আর ট্রাভেলস চেয়ার কোচটি কক্সবাজার থেকে যাত্রী নিয়ে ঢাকার দিকে যাচ্ছিল। রাত সাড়ে বারোটার দিকে কর্ণফুলী উপজেলার ভেল্লাপাড়া ব্রিজের পশ্চিম পাশে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে গাড়িটির গতিরোধ করে। গাড়িতে কোটি টাকার ইয়াবা আছে বলে তল্লাশি করা হয়।

পরে গাড়ির চালককে নামিয়ে পাশের একটি বালুমহালে নিয়ে বেধড়ক মারধর করে ডিবি পুলিশের সদস্যরা। এ সময় তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে চালককে মুমূর্ষা অবস্থায় সিএনজি যোগে চমেক হাসপাতালে নিয়ে যায় গাড়ির সুপারভাইজার আজিম উদ্দিন। সঙ্গে ছিল হেলপার রাব্বী। এ ঘটনা শ্যামলী কর্তৃপক্ষকে জানালে চট্টগ্রাম থেকে চালক পাঠিয়ে গাড়িটি যাত্রীসহ চট্টগ্রাম শহরের কর্নেল হাট মনসুরাবাদ এলাকায় নিয়ে যাওয়া হয়।

গাড়ির সুপারভাইজার আজিম উদ্দিন জানান, চালককে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

কর্ণফুলী থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর মাহমুদ জানান, শ্যামলী পরিবহনের ব্যবস্থাপক মৌখিকভাবে অবহিত করেছেন। অভিযোগ পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email