মানবকণ্ঠের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আবু বকর চৌধুরী মারা গেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক : দৈনিক মানবকণ্ঠের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আবু বকর চৌধুরী মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজিউন)। আজ মঙ্গলবার ভোর ৫টা ১৫ মিনিটে ঢাকার ইবনে সিনা হাসপাতালে তিনি মারা যান।

তার পরিবারের সূত্রে জানা যায়, আজ ভোরে নিজের বাসায় স্ট্রোক করেন আবু বকর চৌধুরী। এ সময় ইবনে সিনা হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

১৯৬৪ সালের ২১ জুন রাজধানী ঢাকার গ্রিন রোডে আবু বকর চৌধুরী জন্মগ্রহণ করেন। বাবা আবদুল হালিম চৌধুরী ও মা রাজিয়া খাতুন। ৯ ভাই-বোনের মধ্যে তিনি ষষ্ঠ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি ম্যানেজমেন্টে অনার্সসহ স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন। ২০১১ সালের ১ অক্টোবর দিল আফরোজার সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি।

আবু বকর চৌধুরী ১৯৯১ সালে ‘সাপ্তাহিক প্রত্যায়ন’ পত্রিকায় নির্বাহী সম্পাদক পদে যোগদানের মধ্য দিয়ে সাংবাদিকতা শুরু করেন। কাজের ধারাবাহিকতায় পরের বছর তিনি ‘সাপ্তাহিক খবরের কাগজ’-এর নির্বাহী সম্পাদক, ১৯৯৫ সালে ‘আজকের কাগজ’-এ সহযোগী সম্পাদক হিসেবে যোগদান করেন। এক সময় ‘আজকের কাগজ’ বন্ধ হয়ে গেলে তিনি ২০০৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রধান বার্তা সম্পাদক হিসেবে ‘আমাদের সময়’ পত্রিকায় যোগ দেন। ওই বছরের অক্টোবরে তিনি ‘সকালের খবর’-এ বার্তা সম্পাদক ও ২০১১-এর এপ্রিলে ‘সমকাল’ পত্রিকায় বার্তা সম্পাদক হিসেবে যোগ দেন।

২০১২ সালে তিনি বার্তা সম্পাদক হিসেবে ‘দৈনিক মানবকণ্ঠে’ যোগদান করেন। এরপর ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে তিনি পত্রিকাটির বার্তা সম্পাদকের পাশাপাশি ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৭ সালে তিনি নির্বাহী সম্পাদক হন। পরবর্তীতে ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে পুনরায় তিনি দৈনিক মানবকণ্ঠের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সাবেক নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য এবং দৈনিক মানবকণ্ঠের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আবু বকর চৌধুরীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে বিএফইউজে (বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে)।

মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) এক যৌথ বিবৃতিতে বিএফইউজে সভাপতি মোল্লা জালাল, মহাসচিব শাবান মাহমুদ, ডিইউজে সভাপতি আবু জাফর সূর্য ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী বলেন, ‌’আবু বকর চৌধুরী ছিলেন পেশাদার সাংবাদিকতার এক উজ্জ্বল নাম। তিনি অধুনালুপ্ত খবরের কাগজ, আজকের কাগজ, সকালের খবর, আমাদের সময়, সমকালসহ দেশের প্রথম সারির বিভিন্ন সংবাদপত্রে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে নিজের দক্ষতা ও যোগ্যতা প্রমাণে সমর্থ হয়েছিলেন। পেশাদার সাংবাদিক হিসেবে ধাপে ধাপে তিনি সংবাদপত্রের শীর্ষ পদে আসীন হলেও কখনো আদর্শচ্যুত হননি। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী আবু বকর চৌধুরী অসাম্প্রদায়িক সমাজ বিনির্মাণে সংগ্রাম চালিয়েছেন আজীবন। তার মৃত্যুতে সংবাদপত্র জগতে যে শূন্যতার সৃষ্টি হলো তা সহজে পূরণ হবার নয়’। বিবৃতিতে নেতারা আবু বকর চৌধুরীর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

আরও পড়ুন: একাডেমিক ভবনের ছাদ ধসে রাবি শিক্ষার্থী আহত

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার ভোর ৫টায় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আবু বকর চৌধুরী মারা যান। বাদ জোহর ধানমন্ডির তাকওয়া জামে মসজিদে প্রথম ও জাতীয় প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গণে দ্বিতীয় নামাজের জানাযা শেষে আজিমপুর কবরস্থানে তার মরদেহ দাফন করা হয়।