মিরপুরে একজনের মৃত্যুদণ্ড, ৭ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

নিজস্ব জেলা প্রতিবেদক : কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় এক গৃহবধূ ও যুবক হত্যার পৃথক দুই মামলায় এক জনের মৃত্যুদণ্ড এবং অপর ৭জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডসহ অর্থদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার সকাল ১১টায় কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরূপ কুমার গোস্বামী আসামিদের উপস্থিতিতে যুবক হত্যা মামলায় এবং সাড়ে ১১টায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক মুন্সী মশিয়ার রহমান আসামির উপস্থিতিতে গৃহবধু হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন।

গৃহবধূ হত্যাকাণ্ডের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলো, মিরপুর উপজেলার বালিয়াশিশা গ্রামের সাদেক আলী মণ্ডলের পূত্র আজাদ মণ্ডল ওরফে আজাদ সাহেব (৩৫)।

অপরদিকে যুবক হত্যার দায়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলো, মিরপুর উপজেলার কবরবাড়িয়া গ্রামের জামাল প্রামানিক, আতর আলী, জামান হোসেন, আসাদুল মোল্লা, মেহের আলী মালিথা এবং সাতগাছি গ্রামের রুবেল মালিথা ওরফে রিবেল ওরফে রেবেল এবং আসলাম মালিথা।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালের ১৮ মে রাত সাড়ে ৩টার দিকে গৃহবধূ কুষ্টিয়া সদর উপজেলার খাজানগর গ্রামের আলী হোসেনের কন্যা তুলি খাতুনকে (১৬) যৌতুকের দাবিতে তার স্বামী আজাদ মণ্ডল পরিবারের লোকজনদের সহযোগিতায় নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করে। তারপর তার লাশ গলায় রশি বেঁধে বাড়ির পাশে আমগাছে ঝুলিয়ে রাখে।

এ ঘটনায় নিহত গৃহবধূর পিতা বাদী হয়ে মিরপুর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এছাড়া অপর এক এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১০ সালের ৭ জুন সকাল সাড়ে ৬টায় ছোট ভাই ডাবলুকে উপর্যুপরি ধারালো অস্ত্রের আঘাত ও গলা কেটে হত্যা শেষে জিকে ক্যানেলের ব্রিক ফিল্ডের পাশে পুকুর পাড়ে ফেলে রেখে যায়। নিহত যুবক ডাবলু হত্যার অভিযোগ এনে বড় ভাই আতর আলী বাদী হয়ে মিরপুর থানায় হত্যা মামলা দা‌য়ের ক‌রেন।

কুষ্টিয়া জজ কোর্টের কৌশুলী অ্যাড. অনুপ কুমার নন্দী জানান, মিরপুর থানায় দায়েরকৃত মামলায় যুবক হত্যার দায়ে ৮জনের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ হওয়ায় তাদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও প্রত্যেককে ২০হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও ৬মাসের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন বিজ্ঞ আদালত।

এছাড়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের কৌশুলী আকরাম হোসেন দুলাল জানান, গৃহবধূ তুলি খাতুন হত্যার দায়ে মিরপুর থানায় দায়েরকৃত মামলায় আসামি আজাদ মণ্ডল ওরফে আজাদ সাহেবর বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগে দীর্ঘ স্বাক্ষ্য শুনানী শেষে অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় বিজ্ঞ আদালত তার মৃত্যুদণ্ডাদেশসহ এক লাখ টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email