শতকোটি টাকার অবৈধ সম্পদের মালিক কাস্টমস কমিশনার

নিজস্ব বার্তা প্রতিবেদক : ঘুষ নিয়ে আটককৃত পণ্য খালাসের মাধ্যমে শতকোটি টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে বেনাপোল কাস্টমস হাউজের কমিশনার বেলাল হোসেন চৌধুরীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল মঙ্গলবার দুদক থেকে তার কাছে তলবি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। নোটিশে বেলাল চৌধুরীকে ৮ সেপ্টেম্বর সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে হাজির হতে বলা হয়েছে।

দুদক সূত্র জানায়, বেলাল হোসেন চৌধুরীর বিরুদ্ধে কিছু সি অ্যান্ড এফ এজেন্টের সঙ্গে যোগসাজশে দুর্নীতির মাধ্যমে সরকারের কোটি কোটি টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে নামে-বেনামে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আছে।

দুদক সূত্র জানিয়েছে, প্রাথমিক অনুসন্ধানে দুদক বেলালের নামে-বেনামে প্রায় শতকোটি টাকার অবৈধ সম্পদের তথ্য পেয়েছে। এসব সম্পদের মধ্যে রয়েছে রাজধানীর বারিধারায় বসুন্ধরায় এফ ব্লকে ১২ নম্বর প্লটে ৫ কাঠা জমির ওপর ৫তলা বাড়ি। যার আনুমানিক মূল্য ৫ কোটি টাকা। নিউ ইস্কাটনে বেলালের স্ত্রীর নামে আছে ৪ কোটি টাকা মূল্যের ৪ হাজার বর্গফুটের একটি ফ্ল্যাট। বারিধারায় বসুন্ধরার ডি ব্লকে ৫ কাঠা ও পূর্বাচলে ১০ কাঠা আবাসিক প্লট। বসুন্ধরা সিটি ও যমুনা ফিউচার পার্কে আছে ৪টি দোকান। এছাড়া বেলাল হোসেন চৌধুরীর গ্রামের বাড়ি নোয়াখালীতে ৫০ বিঘা জমি, আশুলিয়ায় ১০ বিঘা জমি ও গাজীপুরে বেলালের ভাইয়ের নামে একটি গার্মেন্টস কারখানা রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email