সিটি ব্যাংকের এমডি হচ্ছেন মাসরুর আরেফিন

নিজস্ব প্রতিবেদক : মাসরুর আরেফিনমাসরুর আরেফিনবেসরকারি খাতের দি সিটি ব্যাংকের নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হচ্ছেন মাসরুর আরেফিন। ব্যাংকটির এমডি পদ থেকে সোহেল আর কে হুসেইন পদত্যাগ করায় মাসরুর আরেফিনকে নতুন এমডি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদ। গত বুধবার সিটি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভায় সোহেল আর কে হুসেইনের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করা হয় এবং মাসরুর আরেফিনকে নতুন এমডি নিয়োগের সিদ্ধান্ত হয়। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমোদনের পরই কার্যকর হবে নতুন এ নিয়োগ।

জানতে চাইলে সিটি ব্যাংকের চেয়ারম্যান আজিজ আল কায়সার প্রথম আলোকে বলেন, ‘সোহেল আর কে হুসেইন পদত্যাগ করার পর পদটি খালি হয়েছে, তাই নতুন এমডি নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। গত বুধবার অনুষ্ঠিত পরিচালনা পর্ষদের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।’ আজিজ আল কায়সার আরও বলেন, ‘আমরা এ বছর ব্যাংকটিকে নতুন করে সাজাব। নতুন অনেক কিছু বাস্তবায়ন করতে হবে। ব্যাংকটিকে আরও এগিয়ে নিতেই এসব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।’

জানা যায়, সিটি ব্যাংকে যোগদানের আগে সোহেল আর কে হুসেইন ও মাসরুর আরেফিন দুজনই বেসরকারি খাতের ইস্টার্ণ ব্যাংকে ছিলেন। তাঁদের দুজনেরই কর্মজীবন শুরু হয় এএনজেড গ্রিন্ডলেজ ব্যাংকের (বর্তমানে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড) মাধ্যমে। সোহেল হুসেইন ২০০৭ সালে সিটি ব্যাংকে যোগ দিয়ে ২০১৩ সালে এমডি পদে নিয়োগ পান। মাসরুর আরেফিনও ২০০৭ সালে সিটি ব্যাংকে যোগ দিয়ে ২০১৫ সালে এএমডি হিসেবে পদোন্নতি পান। অ্যামেক্স কার্ড ও রিটেইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ব্যাংকটিতে নতুন মাত্রা যোগ করেছেন মাসরুর আরেফিন।

১৯৮৩ সালে কার্যক্রমে আসা প্রথম প্রজন্মের ব্যাংকগুলোর মধ্যে দি সিটি একটি। বর্তমানে ব্যাংকটির ১৩০ শাখা, ৩৬৯ এটিএম বুথ ও ১৬ লাখ গ্রাহক রয়েছে। ৯ লাখ ২৩ হাজার মানুষ ব্যবহার করছেন সিটি ব্যাংকের কার্ড। গ্রাহকসেবায় যুক্ত আছেন ৩ হাজার ২৩০ জন কর্মী। ২০১৬ সালের শুরুতে সিটি ব্যাংকের ৫ শতাংশ শেয়ার কিনে নেয় ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স করপোরেশন। এ জন্য ব্যাংকটি আইএফসি থেকে প্রায় ১৩২ কোটি টাকা বিনিয়োগ পায়। চুক্তি অনুযায়ী, ব্যাংকটির পর্ষদে দুজন পরিচালক নিয়োগ দেবে আইএফসি।

Print Friendly, PDF & Email