৩০০ আসনের লড়াইয়ে ৩০৫৬ মনোনয়নপত্র দাখিল

নিজস্ব প্রতিবেদক : আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে লড়াইয়ের জন্য ৩ হাজার ৫৬ জন তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এরমধ্যে ৩৯টি মনোনয়নপত্র অনলাইনে দাখিল করা হয়েছে। আর স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন অন্তত ১০১ জন।

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বুধবার (২৮ নভেম্বর) রাতে নির্বাচন ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ঢাকা বিভাগে ৭০৮ জন, চট্টগ্রামে ৬৮৮ জন, রংপুরে ৩৬১ জন, রাজশাহীতে ৩৫৩ জন, খুলনায় ৩৫১ জন, বরিশালে ১৮২ জন, ময়মনসিংহে ২৩৬ জন এবং সিলেট ১৭৭ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

ইসি সচিব জানান, ঢাকা-৮ আসনে সবচেয়ে বেশি ২২টি মনোনয়নপত্র দাখিল হয়েছে। আর মাগুরা-২ আসনে জমা হয়েছে সর্বনিম্ন ৪টি মনোনয়নপত্র। ৩৯টি মনোনয়নপত্র অনলাইনে দাখিল করা হয়েছে। যার মধ্যে ব্ল্যাংক ৮টি, শুধু বায়োডাটা ৮টি আর প্রকৃত মনোনয়নপত্র ২৩টি দাখিল হয়েছে। আর স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে অন্তত ১০১ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

দল ও জোটভিত্তিক তথ্য বৃহস্পতিবার (২৯ নভেম্বর) দেওয়া যাবে জানিয়ে হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, সারাদেশে উৎসবমুখরভাবে মনোনয়নপত্র দাখিল হয়েছে। কোথাও কোনো আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

নির্বাচনে এবার কোনো আসনে একক প্রার্থী মনোনয়ন দেওয়ার রেকর্ড নেই। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে অন্তত ৭টি আসনে একক প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। সে সময় মোট মনোনয়নপত্র দাখিল হয়েছিল ২ হাজার ৪৬০টি। ১৯৯১ সালের পর সেবার সবচেয়ে কম সংখ্যক মনোনয়নপত্র জমা পড়েছিল। সে সময় সবচেয়ে বেশি মনোনয়নপত্র দাখিল হয়েছিল ঢাকা-৮ আসনে, ২৩টি। সবচেয়ে কম হয়েছিল ময়মনসিংহ-১, ঠাকুরগাঁও-২, পাবনা-২, বাগেরহাট-৪, কিশোরগঞ্জ-৪ ও ৬ আসনে। এগুলোতে তিনটি করে মনোনয়নপত্র দাখিল হয়েছিল।

২০০১ সালের অষ্টম সংসদ নির্বাচনের সময় ২ হাজার ৫৬৩টি, ১৯৯৬ সালে ৩ হাজার ৯৩টি এবং ১৯৯১ সালে ৩ হাজার ৮৫৫টি মনোনয়নপত্র জমা পড়েছিল।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। দাখিলকৃত মনোনয়নপত্র বাছাই করা হবে আগামী ২ ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহার ৯ ডিসেম্বর আর প্রতীক বরাদ্দ হবে ১০ ডিসেম্বর।

Print Friendly, PDF & Email