শ্রীদেবী নন, শ্রীদেবী–কন্যা

নিজস্ব ডেস্ক প্রতিবেদক : বলিউডে পা রাখার সঙ্গে সঙ্গে নানা ‘অবান্তর’ প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হচ্ছে জাহ্নবী কাপুরকে। কখনো ‘নেপোটিজম’ ইস্যুতে তিনি সমালোচিত হন। আবার কখনোবা খেসারত দিতে হচ্ছে শ্রীদেবী–কন্যা হওয়ায়। প্রায়ই জাহ্নবীর তুলনা টানা হয় মা শ্রীদেবীর সঙ্গে। এমনকি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জাহ্নবী কোনো ছবি পোস্ট করলে অনেকে তাঁর মধ্যে শ্রীদেবীর ছায়া খুঁজতে শুরু করেন।

অভিষেক ছবি ‘ধড়ক’ মুক্তির পর থেকেই অনেকে তাঁর অভিনয়ের মধ্যে শ্রীদেবীর ঝলক খুঁজে বের করতে চান। শুধু তাই নয়, বলিউডের দুই নবাগত নায়িকা সারা আলী খান এবং অনন্যা পান্ডের সঙ্গে তুলনা টেনে প্রতিনিয়ত চলে চুলচেরা বিশ্লেষণ। এ সব নিয়ে বিরক্ত জাহ্নবী। এবার এসব নিয়ে মুখ খুললেন ২৩ বছর বয়সী এই উঠতি বলিউড তারকা।

কখনোই শ্রীদেবী হতে না চাওয়া জাহ্নবী মনে করেন, মায়ের সঙ্গে তাঁর তুলনা টানা অর্থহীন। অভিনয়ের ক্ষেত্রে সুস্থ প্রতিযোগিতা থাকা স্বাভাবিক। কিন্তু কিংবদন্তিতুল্য মায়ের সঙ্গে তাঁর তুলনা টানা অনুচিত ও অসুস্থ ভাবনা। এ প্রসঙ্গে ‘ঘোস্ট স্টোরিজ’খ্যাত জাহ্নবী বলেন, ‘আমার মনে হয় সবার এটা বোঝা উচিত যে আমি শ্রীদেবী নই, আমি জাহ্নবী, একটা অন্য মানুষ। “ধড়ক” মুক্তির পর অনেকে আমার মধ্যে শ্রীদেবীর ছায়া খুঁজে ব্যর্থ হয়েছেন। আমার আগামী কাজ দেখে হয়তো সবাই বুঝবেন, আমি এক স্বতন্ত্র অভিনেত্রী। আমার অভিনয় আর পছন্দও আলাদা।’


অন্য সব তারকার সন্তান ও আত্মীয়দের মতো ‘নেপোটিজম’-এর কবলে পড়তে হয় জাহ্নবীকেও। অনেকেরই ধারণা, নিজের যোগ্যতা থাকুক বা না থাকুক, তারকার সন্তান হিসেবেই বলিউডে জায়গা পেয়েছেন এই তরুণী; যদিও এসব ধারণাকে পাত্তা দেন না তিনি।

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জাহ্নবী একটি ভিডিও দেখা গেছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, বিমানবন্দরে যেতে যেতে তিনি গাইছেন একটি গান। শাহরুখ খান, মাধুরী ও কারিশমা কাপুর অভিনীত ছবি ‘দিল তো পাগল হ্যায়’-এর গান ‘ভোলি সি সুরথ’ গাইছিলেন তিনি। তাঁর গাওয়া সেই গানের ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। উঠতি এই বলিউড তারকাকে এবার দেখা যাবে ‘গুঞ্জন স্যাক্সেনা: দ্য কার্গিল গার্ল’, ‘তখত’, ‘রুহ আফজা’ এবং ‘দস্তানা টু’ ছবিতে।

Print Friendly, PDF & Email