আমি আমার দর্শকের কাছে দায়বদ্ধ: মম

নয়াবার্তা বিনোদন প্রতিবেদক : এদেশের টিভি নাটক বা চলচ্চিত্রের এক অনন্য নাম জাকিয়া বারী মম। ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল লাক্স ফটোসুন্দরী হিসেবে। তবে পরবর্তীতে শুধু ‘মডেল-লুক’ থেকে বেরিয়ে একেবারে জাত অভিনেত্রী হিসেবে মম নিজেকে প্রমাণ করেছেন ইন্ডাস্ট্রিতে। সম্প্রতি অঞ্জন আইচের পরিচালনায় মুক্তি পেয়েছে চলচ্চিত্র ‘আগামীকাল’। ইমনের বিপরীতে দীর্ঘদিন পর কোনো ছবি মুক্তি পেল। প্রায় ১৫ বছর পর মম ইমনের সাথে কোনো ছবিতে কাজ করলেন। এর আগে ‘দারুচিনি দ্বীপ’ চলচ্চিত্রে তারা একসাথে কাজ করেছিলেন।

টিভি নাটক, চলচ্চিত্র বা ওটিটি কন্টেন্ট-সব ক্ষেত্রেই ভীষণ নিষ্ঠার সাথে কাজ করে থাকেন মম। চলচ্চিত্রেও পেয়েছেন ঈর্ষণীয় জনপ্রিয়তা। মম বলেন, ‘আমি যখন যে কাজটিই করি না কেন, তা নিষ্ঠার সাথেই করার চেষ্টা করেছি। এখন একটি প্রডাকশনে একজন অভিনেত্রীই সবকিছু নন। পুরো টিমের কাজটিই দর্শকরা বিচার করেন। সেক্ষেত্রে আমি আমার কাজটি সততার সাথে করার চেষ্টা করেছি সবসময়।’

বর্তমানে বাংলা কন্টেন্টের এক দারুণ চর্চা হচ্ছে ওয়েব সিরিজগুলোতে। ওটিটির এই সুসময়ে মম অভিনীত নতুন এক ওয়েব সিরিজ প্রকাশ পেতে যাচ্ছে হৈ চৈ প্লাটফর্মে। ৬ পর্বের এই ওয়েব সিরিজটির নাম ‘রিফিউজি’। নির্মাণ করেছেন ইমতিয়াজ সজিব। মম’র সাথে অভিনয় করেছেন নবাগত সোহেল মণ্ডল। তবে সোহেলকে নবাগত বলাটাও ঠিক না। কারণ এরই ভেতরে ওয়েব সিরিজ বলি, টান, তাকদীরসহ একাধিক প্রডাকশনে অভিনয় করে নিজেকে প্রকাশ করেছেন সোহেল মণ্ডল।

‘রিফিউজি’ সিরিজের কেন্দ্রীয় চরিত্রে রয়েছেন মম। এটি মূলত ঢাকার ২০০৭ সালের এক শরণার্থী শিবিরের গল্প নিয়ে তৈরি। সিরিজটি প্রসঙ্গে জাকিয়া বারী মম বলেন, ‘সাম্প্রতিক সব কটি কাজের ভেতরে আমার এই কাজটি আমি এগিয়ে রাখবো। কোনো কাজ শেষে বুঝতে পারি যে, প্রডাকশনটি কেমন হলো। সেক্ষেত্রে আমি বলবো এই সিরিজটি দেখলে কোনো দর্শকই ঠকবেন না। কারণ সব মিলিয়ে কাজটি ভালো হয়েছে। আশা করছি আমার দর্শকেরাও আমার এই পরিশ্রমের মূল্যায়ন করবেন সিরিজটি দেখে।’

এর বাইরে প্রচলিত ধারার কন্টেন্ট কাম নাটকের কাজ একেবারেই কমিয়ে দিয়েছেন। মম বলেন, ‘গল্প ভালো না লাগলে কাজ করি না। কারণ অভিনয়ে যে ম্যাচিউরিটি এসেছে তাতে আমি আমার দর্শকের কাছেও দায়বদ্ধ। সেই দায়িত্ব মাথায় ও মনে রেখেই কাজ করি। আজীবন তাই করে যেতে চাই।’ সিরিজটি আগামী ১০ জুন অবমুক্ত হবে হৈ চৈ প্লাটফর্মে।