রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন অ্যাম্বার হার্ড!

নয়াবার্তা বিনোদন ডেস্ক : সাবেক স্বামী জনি ডেপের সঙ্গে মামলায় হেরে যাওয়া নিয়ে বর্তমানে আলোচনার কেন্দ্রে রয়েছেন অভিনেত্রী অ্যাম্বার হার্ড। ২০১৮ সালে জনির বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ এনেছিলেন অ্যাম্বার। এরপরেই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন জনি। অবশেষ বুধবার সেই মামলায় জয়ী হয়েছেন জনি ডেপ। রায়ে অভিনেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় অ্যাম্বারকে দেড় কোটি ডলার জরিমানা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বিচারকরা জানিয়েছেন, অ্যাম্বার যে অভিযোগ জনির বিরুদ্ধে এনেছিলেন তা মিথ্যা এবং অবমাননাকর। পাশাপাশি জনির বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তোলার পেছনে অ্যাম্বারের অসৎ উদ্দেশ্য ছিল বলেও আদালত জানিয়েছে। তবে আদালতে এমন সিদ্ধান্তে জনি এবং তার ভক্তরা উচ্ছ্বসিত হলেও রায় নিয়ে সন্তুষ্ট নন অ্যাম্বার। আদালতের এমন রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

অ্যাম্বারের অভিযোগ, তার আইনজীবীকে সঠিক তথ্য উপস্থাপনের সুযোগ দেওয়া হয়নি। এছাড়া জরিমানার অর্থ প্রদান করার মতো আর্থিক অবস্থা এই মুহূর্তে অ্যাম্বারের নেই। তার আর্থিক দৈন্যতার কথা আদালতে জানানো হলেও জুরিরা তা আমলে না নিয়ে রায় ঘোষণা করেছেন।

এ প্রসঙ্গে গণমাধ্যমে অ্যাম্বার বলেন, ‘এই রায়ের বিরুদ্ধে আপলি করার যথেষ্ট কারণ আমার কাছে আছে। প্রথমত, জরিমানার টাকা পরিশোধ করার মতো আর্থিক অবস্থা আমার নেই। দ্বিতীয়ত, মামলার শুনানিতে আদালতে জুরিদের বিভ্রান্ত করার মতো বেশকিছু বিষয় উপস্থাপিত হয়েছিল। এমনকি আমার আইনজীবীকে মামলা সম্পর্কিত অনেক বিষয় উপস্থাপন করার সুযোগ দেওয়া হয়নি।

এছাড়া জুরিরা মামলার রায়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের প্রতিক্রিয়াকে মূল্যায়ন করেছেন। যা কখনও কাম্য ছিল না। আমরা যদি আরও কিছুদিন সময় পেতাম তাহলে তারা প্রভাবিত হতে পারতেন না। যদিও তারা আমার আইনজীবীকে তথ্য-প্রমাণ উপস্থাপন ও যুক্তিতর্কের পর্যাপ্ত সময় দেননি। সবকিছু বিবেচনায় রায়ের বিরুদ্ধে আপিল না করার কারণ খুঁজে পাচ্ছি না। আমার বিশ্বাস উচ্চ আদালতে সুবিচার পাবো।