খুলনায় শিশু হত্যা মামলায় সৎ মায়ের মৃত্যুদণ্ড

নয়াবার্তা জেলা প্রতিবেদক : খুলনায় শিশু তানিশা (৫) হত্যা মামলায় সৎ মা তিথী আক্তার মুক্তাকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মশিউর রহমান চৌধুরী এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় মুক্তা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

আদালত সূত্র জানায়, তেরখাদা উপজেলার আড়কান্দি গ্রামের আনসার ব্যাটালিয়ন সদস্য মো. খাঁজা শেখের প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়। তার প্রথম পক্ষে তানিশা নামে একটি মেয়ে ছিল।পরে ২০২০ সালের ২৯ জানুয়ারি বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার আট্টাকি গ্রামের মৃত হোসেন আলী শেখের মেয়ে তিথী আক্তার মুক্তাকে তিনি বিয়ে করেন। বিয়ের পর মুক্তা বিভিন্ন ব্যক্তির সঙ্গে ইমো ও ম্যাসেঞ্জারে কথা বলতো। এ নিয়ে খাঁজা শেখ স্ত্রীকে সন্দেহ করতো। তানিশা মুক্তার সঙ্গে ঘুমাতো। চলতি বছরের ২ এপ্রিল মোবাইলে কথা বলা নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বাধে। একপর্যায়ে খাঁজা শেখ স্ত্রীকে তালাক দেওয়ার হুমকি দেন। ৫ এপ্রিল রাতে মুক্তা সৎ মেয়ে তানিশাকে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে।

এ ঘটনায় তানিশার দাদা আবুল বাশার শেখ তেরখাদা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। গত ৩১ মে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই শফিকুল ইসলাম মুক্তাকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।