পশ্চিমের প্রতি জেলেনস্কির তীব্র ক্ষোভ

নয়াবার্তা ডেস্ক : বুধবার (২৫ মে) পূর্ব ইউক্রেনে ভয়ংকর যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়েছে। রাশিয়ান সৈন্যরা একটি গুরুত্বপূর্ণ শিল্প শহর ঘেরাও করার দ্বারপ্রান্তে। এ জন্য প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি কিয়েভকে যুদ্ধ জয়ে যথেষ্ট সাহায্য না করার জন্য দায়ী করে পশ্চিমের প্রতি তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

লুগানস্কেও আঞ্চলিক গভর্ণর সের্গেই গেইডে শিল্প শহর সেভেরোডোনেটস্ক’র বাইরে যুদ্ধ করাকে রাশিয়ার জন্য একটি মূল সামরিক লক্ষ্য হিসেবে বর্ণনা করে বলেছেন, রাশিয়ান সৈন্যরা শহরের উপকন্ঠ থেকে মর্টার থেকে গোলা বর্ষণ করছে।পরিস্থিতি ‘খুবই ভয়াবহ।’

টেলিগ্রামে পোস্ট করা এক ভিডিওতে গেইডে বলেছেন, ‘আসন্ন সপ্তাহটি নিষ্পত্তিমূলক হবে’।তিনি বিশ্বাস করেন যে ‘রাশিয়ার লক্ষ্য যে কোন মূল্যে লুগানস্ক দখল করা।’ তিনি বলেন, ব্যাপক গোলা ছোঁড়া হচ্ছে।

আগের দিন ডাভোসে ওয়াল্ড ইকোনমিক ফোরামে ভাষণ দেওয়ার সময় ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্রো কুলেবা দনবাসের যুদ্ধকে দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের সাথে তুলনা করে বলেছেন রাশিয়ার ফায়ার পাওয়ারের মোকাবেলার জন্য তার দেশের ‘জরুরিভাবে’ মাল্টিপল রকেট লঞ্চ সিস্টেম প্রয়োজন। কিয়েভে জেলেনস্কি একই আবেদনের প্রতিধ্বনি করেছেন।

জাতির উদ্দেশে প্রতিদিনের ভাষণে জেলেনস্কি বলেছেন, ‘আমাদের অংশীদারদের সাহায্য দরকার, সর্বোপরি ইউক্রেনের জন্য অস্ত্র দরকার। ব্যতিক্রম ছাড়া, সীমা ছাড়া পুরোপুরি সহযোগিতা, জয়ের জন্য যথেষ্ট সহযোগিতা প্রয়োজন।’

ইউক্রেন সংঘাতের অবসানে কিছু অঞ্চল ত্যাগ করতে হতে পারে সম্প্রতি নিউইয়র্ক টাইমস’র সম্পাদকীয় এবং অনুরূপ পশ্চিমা প্রভাবশালী ব্যক্তিদের বিবৃতিতে এমন একই পরামর্শ দেয়ার জন্য ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ক্ষোভ প্রকাশ করেন।