সাটুরিয়ায় স্বামীকে অপহরণ করলো স্ত্রী

সাটুরিয়া প্রতিনিধি : এবার স্বামী-স্ত্রী বিবাদ কেন্দ্র করে স্বামীকেই অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। অপহরণের মাধ্যমে স্বামীকে কথিত মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে আটক রেখে চালানো হয়েছে অমানবিক নির্যাতন। অপহরণ এবং নির্যাতনের মাধ্যমে ওই স্বামীকে হেনস্থা করতে সহযোগীতা করেছে সাভার এলাকায় ‘আমার মাদকসক্তি নিরাময় কেন্দ্র’ নামের একটি নাম স্বর্বস্ব প্রতিষ্ঠান। অপহরণের ৩ দিন পর সাটুরিয়া থানা পুলিশের অভিযানে স্বামী রেজাউল করিমকে উদ্ধার এবং নিরাময় কেন্দ্রের ৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে স্ত্রী তানিয়াকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। রোববার বেলা ১১টায় সাটুরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আশরাফুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ভুক্তভোগী রেজাউল কোন ধরণের নেশা এমনকি সিগারেট ধরে না। রেজাউলের স্ত্রী তানিয়া অপহরণ করে তাকে সাভারের ওই মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে আটক রেখে নির্যাতন করছিলো।

আটককৃতরা হচ্ছেন, সাভার ব্যাংক কলোনী এলাকার আতিকুল ইসলাম (৪২), ফরিদপুর জেলার আলফাডাঙ্গার বরাইচ এলাকার নাসির আহম্মেদ (৩২), গাজীপুরের কাশিমপুর সারদাগঞ্জ এলাকার আবুল কাইয়ুম (৩২), সাভার গেন্ডা এলাকার শহিদুল হক দিপু, ঢাকার বংশাল থানার চানখারপুর এলাকার সাজিদ হাসান বাবু (৪২), সাভার থানার রাজাশান এলাকার আব্দুল হাকিম (৫৫)।

সাটুরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আশরাফুল আলম বলেন, পারিবারিক বিবাদের জেরে রেজাউলের স্ত্রী তানিয়া ও শ্বাশুড়ী রেজাউলকে অপহরণ করে। আর মাদক সেবী না হলেও রেজাউলকে শুধুমাত্র অর্থেরে বিনিময়ে তাদের কেন্দ্রে রাখতে পারেন না। তাছাড়া তাকে বিভিন্ন ভাবে শারিরীক নির্যাতন করা হয়েছে। তারা ভূয়া আমার মাদকাশক্তি নিরাময় কেন্দ্র অফিস করে মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছে। এ প্রতিষ্ঠানের সরকারি কোন অনুমোদন নেই। আমরা অপহরণ মামলা নিয়েছি এখন রেজাউলের স্ত্রী ও শাশুড়ীকে গ্রেপ্তার করতে পারলেই আসল রহস্য জানা যাবে।